আপনজন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৩ শতাতিক রোগীর চক্ষু পরীক্ষা, ৫০ জনের ছানি অপারেশন

প্রকাশিত: ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৪, ২০২৪

আপনজন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৩ শতাতিক রোগীর চক্ষু পরীক্ষা, ৫০ জনের ছানি অপারেশন

বক্তারা বলেন, চোখ মানুষের অমূল্য সম্পদ। চোখের মাধ্যমে পৃথিবীর আলো ও সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। সেই চোখের যতœ নেয়া ও চিকিৎসা গ্রহণ করা আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব। মহামূল্যবান চোখের চিকিৎসা দেয়া আপনজন ফাউন্ডেশনের ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান একটি মহতী উদ্যোগে। বক্তারা এই ফাউন্ডেশনের মত অন্যান্য সামাজিক সংগঠনগুলোকে মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহবান জানান এবং আগামীতে এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
নবীগঞ্জ উপজেলার ১নং বড় ভাকৈর পশ্চিম ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে আপনজন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ১মার্চ শনিবার দিনব্যাপী সোনাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।
বিশিষ্ট সমাজসেবী শালিস ব্যাক্তিত্ব আসমান উল্লাহ এর সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক এম ইজাজুল হক ইজাজ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ১নং বড় ভাকৈর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু রঙ্গলাল দাশ, সিলেট জজ কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ মিজানুল হক মিজান, বর্তমান মেম্বার সেলিম মিয়া, সাকোয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুবেল মিয়া, সমাজসেবী শহীদ মিয়া, সাবেক মেম্বার আব্দুল মন্নান মুন্সি, সাবেক মেম্বার মোঃ সাইফুর রহমান, আপনজন ফাউন্ডেশনের সাধরণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, উপদেস্টা জুয়েল মিয়া, কোষাধ্যক্ষ মাহমুদুল হাসান, ইমন আহমদ প্রমুখ।
চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের সাথে আলাপকালে জানান তারা বিনামূল্যে চিকিৎসা পেয়ে খুবই খুশি। এই মানবিক কর্মকান্ডের জন্য আপনজন ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান এবং ভবিষ্যতে সামাজিক সকল কাজে তাঁদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস প্রদান করেন। মানুষের কল্যাণের লক্ষ্যে আগামীতে আরো চক্ষু শিবির পরিচালনা করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থেকে পুরো ক্যাম্প ঘুরে চিকিৎসার মান দেখে সন্তষ্টতা প্রকাশ করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

shares