এমপি মিলাদ গাজীর বিরুদ্ধে ফেইসবুকে কটুক্তি // ,গ্রেপ্তার১

প্রকাশিত: ১:৪১ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২০

এমপি মিলাদ গাজীর বিরুদ্ধে ফেইসবুকে কটুক্তি  //  ,গ্রেপ্তার১

সিলেটের নিউজঃ
হবিগঞ্জ -১ নবীগঞ্জ বাহুবলের সংসদ সদস্য শাহ নওয়াজ মিলাদগাজীর বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কটুক্তিকর স্ট্যাটাস দেয়ায়
আব্দুল্লাহ আল মামুন, জাকির হোসেন, হাবিবুল্লাহ রুহেলসহ অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা দায়ের করেন এমপি শাহ নওয়াজ মিলাদগাজীর কম্পিউটার অপারেটর অলিউডর রহমান ইমরান। এঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের পাহাড় পুর গ্রামের আব্দুল্লাহ আল মামুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।৭ মে মামলা হলেও আসামি গ্রেপ্তারে কৌশল প্রয়োগ করে পুলিশ। অপর দুই আসামীকে গ্রেপ্তারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চলছে। মামলার খবর নিশ্চিত করেন থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান। মামলা ও পুলিশ সূত্র জানায়,প্রাকৃতিক দুর্যোগ মহামারী করোনায় সরকারের তরফে সারাদেশে লকডাউন ঘোষণার পর ব্যাক্তিগত ভাবে প্রায় ৬ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেন সংসদ সদস্য শাহ নওয়াজ মিলাদগাজী। পর্যাক্রমে দেয়া ওই সহয়তা নিয়ে অভিযুক্ত জাকির হোসেন ও তার সহযোগী আব্দুল্লাহ আল মামুন,হাবিবুল্লাহ রুহেল কটুক্তি মূলক পোষ্ট করেন। এতে কমেন্ট ও লাইক নিয়ে অস্থিরতা দেখা দেয়। আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনে উত্তেজনায় আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হওয়ার পরিবেশ তৈরি হয়। মহামারী করোনা ও পবিত্র মাহে রমজানে পরিস্থতি নিয়ন্ত্রনে ওই মামলা দায়ের হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেপ্তার করে। এঘটনায় সংসদ সদস্য শাহ নওয়াজ মিলাদ বলেন,নিজের সন্তানকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভারতে ফেলে রেখে নির্বাচনী এলাকায় জনগণের পাশে রয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর উপহার দরিদ্র ও অসহায় জনগোষ্ঠীর নিকট পৌঁছে দেয়ার সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিং করে নির্দেশনা দিচ্ছি। ব্যাক্তিগত ভাবে দিবারাত্রি সাধ্যমত সহায়তার চেষ্টা করছি। এর মধ্যে বিশেষ গোষ্ঠী বেষ্টিত ষড়যন্ত্র ও সামাজিক অস্থিরতা তৈরির অপচেষ্টা কখনও কাম্য হতে পারে না। মামলার বিষয়ে থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান বলেন,অহেতুক কাউকে হয়রানী করা হবে না। সামাজিক নিরাপত্তায় গুজব না ছড়াতে আহবান জানান তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

shares