বঙ্গমাতা শেখ ফফিলাতুন্নেছা পদকে ভূষিত হওয়ায় সৈয়দা জেবুন্নেছা হক’কে সংবর্ধনা //নারীদের অগ্রাযাত্রায় সৈয়দা জেবুন্নেছা হকে’র অবদান অপরিসীম

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০২২

বঙ্গমাতা শেখ ফফিলাতুন্নেছা পদকে ভূষিত হওয়ায় সৈয়দা জেবুন্নেছা হক’কে সংবর্ধনা //নারীদের অগ্রাযাত্রায় সৈয়দা জেবুন্নেছা হকে’র অবদান অপরিসীম

এম ইজাজুল হক ইজাজঃ সিলেটের নিউজ টুয়েন্টিফোরঃ
বক্তারা বলেন নারীদের অগ্রযাাত্রায় জেবুন্নেছা হকের অবদান অপরিসীম। আজকের এই সংবর্ধনা প্রদান জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের জন্য ঐতিহাসিক হয়ে থাকবে। দলের যেকোন প্রয়োজনে সবার আগে যিনি থাকেন তিনি থাকেন জেবুন্নেছা হক। জেবুন্নেছা হক তৃনমূলের, মাঠের, রাজপথের রাজনীতি করেছেন। নেতাকর্মীদের সুখে দুঃখে তিনি সবার আগে ছুটে যেতেন। জেলগেইটে তিনি, মিছিলে তিনি, সভা সমাবেশে তিনি, দলের জন্য চাদা দানেও তিনি সবার প্রথমে থাকেন। বক্তারা আরো বলেন তাঁর যৌবন কাল থেকে এখন পর্যন্ত রাজনীতিতে সক্রিয় আছেন। দীর্ঘ সময়ে রাজনীতিতে সক্রিয় থাকা একটি বিরল ঘটনা। বর্তমান আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সকলেই তাঁর ¯েœহ ধন্য। তিনি সকলের নেত্রী, সকলের অভিভাবক। বক্তারা আরো বলেন, যে রাজনীতি বঙ্গবন্ধু করেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা সেই রাজনীতি করছেন, জেবুন্নছা সেই রাজনীতি করেছেন। একদিনের জন্য দলের আদর্শ থেকে পিছপা হোননি। নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পাশে থাকতেন জেবুন্ননছা। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ছেলের মত, ছোট ভাইয়ের মতো ভালো বাসতেন। মিছিল সভা শেষে সবাই না যাওয়া পর্যন্ত থাকতেন। তারা বলেন, তিনি বঙ্গন্ধুর সাথে রাজনীতি করেছেন। রাজনীতি করছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যার সাথে। এই দীর্ঘপথ অতিক্রম করতে তাকে অনেক চড়াই উৎরাই পার হতে হয়েছে। গ্রেনেড হামলা আহত হওয়াসহ কারাবরণ করতে হয়ে। তাঁর কাছ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্য ব্যক্তিকেই সম্মানিত করেছেন। আমরা তার জীবনদর্শন অনুসরণ করে চললে আমরাও একদিন সেই সম্মানে ভূষিত হবো।

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সকলে সহযোগিতা ছাড়া তার পক্ষে রাজনীতি করা সম্ভব ছিলো না। সবাই সহযোগিতা করেছেন বলেই এই পদকে ভূষিত হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক প্রদানের মাধ্যমে প্রমাণ হয়েছে পরিশ্রম ও ধৈর্য্য কখনো বিফলে যায় না। এটা আমাদের সকলের অর্জন। তিনি এই অর্জন সকলের জন্য উৎসর্গ করেন।

জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত সোমবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক-২০২২ এ ভূষিত হওয়ায় সৈয়দা জেবুন্নেছা হককে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ সালমা বাসিত এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সালমা সুলতানা এর পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী।
প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দীন খান।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি নাজনীন হোসেন, জেলা ্আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন খান, মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসমা কামরনা, মারিয়ান চৌধুরী, যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আনজুমান আরা, সহ-সভাপতি হোসনা মতিন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রাজিয়া রহমান, দপ্তর সম্পাদক নাজু চৌধুরী, যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী নাজমা হোসেন, বার্মিংহাম মহিলা আওয়ামীলীগে সাধারণ সম্পাদক ফাহিমা বেগম।
আরও বক্তব্য রাখেন, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আছিয়া শিকদার, জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, জেলা পরিষদের সদস্য আমাতুজ জাহুরা রওশন জেবীন রুবা, সিলেট জেলা মহিলা সংস্থার সভাপতি, মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন আহমদ, জাহানারা খানম মিলন, সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাসিনা বেগম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক কৈইতুন্নেছা ও গীতা পাঠ করেন শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক বীনা সরকার। অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন মহিলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। প্রেস-বিজ্ঞপ্তি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

shares